ইমরান খানের আজাদি মার্চ: লাহোরে রণক্ষেত্র

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৬:০৭ অপরাহ্ণ, ২৫/০৫/২০২২

সংগৃহীত

পাকিস্তানের সদ্যক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ডাকা ‘আজাদি মার্চে’ যোগ দিতে দেশটির বিভিন্ন স্থান থেকে তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) হাজার হাজার নেতাকর্মী রাজধানী ইসলামাবাদের অভিমুখে যাত্রা করেছেন।

দেশটির বর্তমান সরকার এই সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ায় বুধবার (২৫ মে) লাহোরে দলটির নেতাকর্মীদের সাথে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর দফায়-দফায় সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লাহোরের বাট্টি চকে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। সেখানে পিটিআই কর্মীরা ব্যারিকেড ভেঙে সমাবেশে যোগ দেওয়ার চেষ্টা করলে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ছুড়ছে পুলিশ।

লাহোরে পিটিআইয়ের শীর্ষ নেতারা তাদের কর্মীদের বাট্টি চকে জড়ো হতে বলেছেন। সেখান থেকেই তারা ইসলামাবাদের উদ্দেশে রওনা হবেন। দলীয় কর্মীরা মোড়ে মোড়ে জড়ো হয়ে ব্যারিকেড সরানোর চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় পুলিশ কাঁদানেগ্যাস নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইমরান খানের ‘আজাদি মার্চ’ রুখে দিতে নিরাপত্তা কর্মীদের সম্ভাব্য সকল ধরনের ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। ইমরান খান তার এই ‘আজাদি মার্চ’কে পাকিস্তানের রাজনৈতিক ইতিহাসে সবচেয়ে বড় সমাবেশ হতে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন।

ইমরান খানের ‘আজাদি মার্চ’ রুখে দিতে দেশটির নিরাপত্তা কর্মীরা উচ্চ সতর্কতায় আছে। লাহোরে পিটিআইয়ের র‍্যালি থেকে দেশটির পুলিশ সাবেক জ্বালানিমন্ত্রী ও পিটিআইয়ের সিনিয়র নেতা হামাদ আজহারকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালিয়েছে। তবে দলের কর্মীরা তাকে রক্ষা করে।

Nagad

এদিকে এক টুইট বার্তায় সাবেক জ্বালানিমন্ত্রী হামাদ আজহার জানিয়েছেন, তিনি বাট্টি চকে পৌঁছেছেন। অন্যদিকে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়াসমিন রশিদের গাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। তাকে সামনে এগোতে দেওয়া হয়নি।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাট্টি চকে পিটিআই’র ১০ জনের বেশি কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এছাড়া শ্রীনগর হাইওয়ে থেকে আরও বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ডি-চক থেকেও পিটিআই কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সারাদিন/২৫ মে/এমবি