টফি অ্যাপে অর্থ উপার্জনের সুযোগ আনলো বাংলালিংক

ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট প্ল্যাটফর্ম টফি-তে দেশের কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য উপার্জনের সুযোগ এনেছে বাংলালিংক। ঢাকার একটি হোটেলে জনপ্রিয় কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের উপস্থিতিতে আয়োজিত ‘টফি কন’ অনুষ্ঠানে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি। তিনি টফিতে একটি চ্যানেল খুলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের একটি ভিডিও শেয়ার করে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন।

দেশের নানা প্রান্ত থেকে ৩০০ জন কনটেন্ট ক্রিয়েটর এই অনুষ্ঠানে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংক-এর চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গ দত্ত, বাংলালিংক-এর চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান এবং বাংলালিংক-এর অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।
টফি-এর ইউজার জেনারেটেড কনটেন্ট (ইউজিসি) প্ল্যাটফর্মে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য এই আয়ের সুযোগ চালু হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর ‘বাংলাদেশে কনটেন্ট ক্রিয়েশনের সম্ভাবনা’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনার প্যানেলিস্ট হিসেবে বক্তব্য দেন নগদ এর প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক, বিকাশ লিমিটেড এর চিফ কমার্শিয়াল অফিসার আলী আহমেদ এবং বিশিষ্ট অভিনেতা তারিক আনাম খান।

জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি, বলেন, “আজকের তরুণ প্রজন্ম ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের জন্য কনটেন্ট তৈরিতে আগ্রহী। আমি আনন্দিত যে, টফি-এর মতো একটি দেশি প্ল্যাটফর্ম কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য উপার্জনের সুবিধা প্রদান করছে। সৃজনশীল তরুণদের ক্ষমতায়নে টফি-এর এই উদ্যোগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।”

বাংলালিংক-এর চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গ দত্ত বলেন, “ডিজিটাল অপারেটর হওয়ার কৌশলগত অংশ হিসেবে বাংলালিংক সবসময় ভবিষ্যৎমুখী উদ্যোগ নেওয়ার চেষ্টা করে। সারাদেশে দ্রুততম ফোর জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের পাশাপাশি আমরা উন্নত সুবিধার মানসম্পন্ন ডিজিটাল পরিষেবা নিয়ে আসার ক্ষেত্রে মনোযোগ দিচ্ছি। আমি বিশ্বাস করি যে, টফি-তে উপার্জনের সুবিধা তরুণ কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখবে।“

টফি অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ডিভাইস এবং অ্যান্ড্রয়েড টিভিতে প্লে স্টোর এবং অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

Nagad