আজকের দিনের জাতীয় পর্যায়ের শীর্ষ ১০ খবর

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ আগস্ট ২০২২, ৬:০৮ অপরাহ্ণ

খেলাপি ঋণে আরেক মাইলফলক ছুঁয়েছে বাংলাদেশ

খেলাপি ঋণে নতুন আরেক মাইলফলক স্পর্শ করেছে বাংলাদেশ। ব্যাংক খাতে এখন খেলাপি ঋণ সোয়া লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার সময় উত্তরাধিকারসূত্রে খেলাপি ঋণ পেয়েছিল ২২ হাজার ৪৮১ কোটি টাকা। এরপর একের পর এক আর্থিক খাত কেলেঙ্কারি এবং ঋণখেলাপিদের বারবার সুযোগ দেওয়ার পর সেই খেলাপি বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার ২৫৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। খেলাপি ঋণের এ তথ্য ব্যাংকগুলোর দেওয়া। তবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করেন, এর পরিমাণ এর চেয়ে অনেক বেশি। কেননা খেলাপি ঋণের এ তথ্য ব্যাংকগুলোর নিজেরই দেওয়া। এখন বাংলাদেশ ব্যাংক পরিদর্শন করে দেখতে পারে প্রকৃত চিত্রটা কী। এ জন্য আপাতত একটি উদাহরণই যথেষ্ট।
যেমন বেসরকারি খাতের ইউনিয়ন ব্যাংকের নিজের হিসাবে তাদের খেলাপি ঋণ ৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ। কিন্তু কেন্দ্রীয় ব্যাংকই গত এপ্রিল মাসে ইউনিয়ন ব্যাংক পরিদর্শন করে বলেছে, আসলে তাদের খেলাপি ঋণ ৯৫ শতাংশ। টাকার অঙ্কে যা ১৮ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারও গত সপ্তাহে বলেছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ১০টি ব্যাংককে দুর্বল বলে চিহ্নিত করেছে। সূত্র: প্রথম আলো

সংসার খরচের হিসাব মিলছে না

প্রায় এক মাসের ব্যবধানে বেশির ভাগ নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছে। আয়ের সঙ্গে বাড়তি ব্যয়ের হিসাব মেলাতে পারছে না মানুষ। এই এক মাসে প্রায় প্রতিটি পণ্যের দাম দফায় দফায় বেড়েছে। দাম বাড়ার কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা বলছেন, পণ্যের সরবরাহ কমে যাওয়া ও পরিবহন ব্যয় বেড়ে যাওয়া।গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার, বাবুবাজার ও জোয়ারসাহারা বাজার ঘুরে এবং ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এসব কথা জানা যায়।রাজধানীর বাজারগুলোতে গত ৮ জুলাই ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয় প্রতি কেজি ১৪৫ থেকে ১৫০ টাকায়। সেই দাম বেড়ে গতকাল কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছিল ১৮৫ থেকে ১৯০ টাকায়। সোনালি মুরগির দাম ছিল ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা, গতকাল তা বিক্রি হয় ২৯৫ থেকে ৩০০ টাকায়। ডিম ডজন ছিল ১২০ থেকে ১২৫ টাকা, সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪০ থেকে ১৪৫ টাকায়। মোটা চাল আটাশ ছিল ৪৮ থেকে ৫২ টাকা, সেই চাল গতকাল বিক্রি হয় প্রতি কেজি ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়। ৬০ থেকে ৭০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া মিনিকেট চাল গতকাল বিক্রি হয় ৭০ থেকে ৭৫ টাকায়। বেশি বেড়েছে কাঁচা মরিচের দাম। এক মাস আগের দামের তুলনায় বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। দাম বেড়ে যাওয়ায় বাজারে ভোক্তার চাহিদা ও ব্যবসায়ীদের বিক্রিও কমেছে। সূত্র: কালের কণ্ঠ

একদিনেই ফাইলে স্বাক্ষর সব কর্মকর্তার
বালু তোলার অনুমতিতে বিশেষ তৎপরতা
সেই সেলিম খানের ছেলে ও ভাইয়ের আবেদন * প্রটোকল ভেঙে শিক্ষামন্ত্রী ও নৌসচিবের কাছে চাঁদপুর বন্দর কর্মকর্তার ইতিবাচক প্রতিবেদনের অনুলিপি

চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনা নদীর তলদেশ থেকে দেশীয় প্রযুক্তির ড্রেজার দিয়ে ‘জনস্বার্থে’ বালু তোলা ও বিক্রির অনুমোদন দিতে হঠাৎ তৎপর হয়েছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়। এ অনুমোদন পেতে আবেদন করেছে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নম্বর লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম খানের ছেলে শান্ত খান ও তার ভাই বোরহান খানের প্রতিষ্ঠান।চাঁদপুর সদর ও হাইমচর উপজেলার নয়টি মৌজা থেকে তিন বছরে নয় কোটি ঘনফুটের বেশি বালু উত্তোলন ও বিক্রির অনুমোদন চেয়েছে প্রতিষ্ঠান দুটি। ওই আবেদনের পরিপ্র্রেক্ষিতে ত্বরিতগতিতে সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়। নৌসচিবের দপ্তর থেকে বিষয়টি নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ওই দুই প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ইতিবাচক মতামত দিয়ে প্রতিবেদন দিয়েছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চাঁদপুর বন্দর কর্মকর্তা।প্রটোকল ভেঙে ওই প্রতিবেদনের অনুলিপি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও নৌসচিব মো. মোস্তফা কামালের একান্ত সচিবকে দেওয়া হয়েছে। তবে এ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর একান্ত সচিবকে কোনো অনুলিপি দেওয়া হয়নি। সূত্র: যুগান্তর

সুইজারল্যান্ডের কাছে বিভিন্ন সময় তথ্য চেয়েছে সরকার
সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থ

সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমা থাকা অর্থের বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য চেয়েছে বাংলাদেশ। দেশটি কিছু তথ্য সরবরাহও করেছে। সর্বশেষ গত জুনে সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের বার্ষিক রিপোর্ট প্রকাশের পরও তথ্য চেয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণে থাকা বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বুধবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শুয়ার্ড জানান, সুইস ব্যাংকে রাখা অর্থের বিষয়ে বাংলাদেশ থেকে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য চাওয়া হয়নি। তাঁর এ বক্তব্য পরে বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনার জন্ম দেয়। কারণ, বাংলাদেশ ব্যাংক ও দুদক বিভিন্ন সময়ে তথ্য চাওয়ার কথা গণমাধ্যমকে বলেছে। রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যের পরদিন বৃহস্পতিবার দেশটির বিভিন্ন ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থ রাখার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য চাওয়া হয়েছে কিনা, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এসব নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে বলা হয়, বিভিন্ন সময়ে তথ্যবিনিময়ের বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করা হবে। গভর্নরের উপস্থিতিতে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, বিএফআইইউ কবে-কী তথ্য চেয়েছে, তা আদালতে উপস্থাপন করা হবে। সংশ্নিষ্টরা জানান, সুইজারল্যান্ডের এফআইইউর সঙ্গে বাংলাদেশের এফআইইউর আলাদা কোনো চুক্তি নেই। ২০১৪ সাল থেকে দেশটির সঙ্গে চুক্তির জন্য কয়েক দফা চেষ্টা করেও সাড়া মেলেনি। তবে দুটি সংস্থাই 'এগমন্ট গ্রুপে'র সদস্য হিসেবে একে অপরের সঙ্গে নিরাপদ ওয়েবপোর্টালের মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান করে। এগমন্ট গ্রুপ হলো- বিভিন্ন দেশের এফআইইউর সমন্বয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক ফোরাম। ২০১৩ সালে এ ফোরামের সদস্য হয় বিএফআইইউ। একসময় সুইজারল্যান্ড কোনো রকম তথ্য প্রকাশ করত না। এখন প্রতিবছর সে দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে তাদের দায় ও সম্পদের তথ্য প্রকাশ করছে। সূত্র: সমকাল

ডলারনির্ভরতা কমাতে চায় সরকার
বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা নিয়ে আলোচনা

আমদানি বাণিজ্যে ডলারনির্ভরতা কমাতে চায় সরকার। চলমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটে বিশ্বব্যাপী মার্কিন ডলারের আধিপত্য চলছে। বাংলাদেশের ব্যাংক ও অব্যাংক খাতে প্রায় প্রতিদিনই হুহু করে ডলারের দাম বাড়ছে। ইতিহাসের পাতায় রেকর্ড হয়ে টাকার বিপরীতে ডলার ১১৫ টাকায় উঠেছে। একই সঙ্গে ইউরোর দামও বাড়ছে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে। ডলার সংকটের কারণে আমদানির এলসি খুলতে হিমশিম খাচ্ছে ব্যাংকগুলো। অবশ্য পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বিদেশ ভ্রমণ, বিলাসী পণ্য আমদানিসহ ডলার খরচ কমাতে নানা ধরনের উদ্যোগ নিলেও সংকট কমছে না। বরং প্রতিদিনই এই সংকট তীব্র হচ্ছে। রপ্তানি আয় ও রেমিট্যান্সের তুলনায় আমদানি ব্যয়ের ক্ষেত্রে প্রতি মাসে অন্তত ২ বিলিয়ন ডলার ঘাটতি সৃষ্টি হচ্ছে। এর ফলে ডলারের আধিপত্য আরও বাড়ছে। তাই বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় রপ্তানি ও রেমিট্যান্স বাড়ানোর পাশাপাশি আমদানি বাণিজ্যে ডলারের ঘাটতি কমাতে ভিন্ন পথ খুঁজছে সরকার। এ জন্য ডলারের প্রতি নির্ভরতা কমিয়ে চৈনিক মুদ্রা ইউয়ান, ভারতীয় রুপি এবং রাশিয়ার মুদ্রা রুবলসহ আরও বিভিন্ন দেশের মুদ্রাকে বিকল্প হিসেবে ব্যবহারের জন্য চিন্তা-ভাবনার পথ খোঁজা হচ্ছে। এমনকি সরকারের ভিতরে ও বাইরে এ নিয়ে জোরালো আলোচনা হচ্ছে।
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ডলারের আধিপত্য কমাতে অনেক দেশই চেষ্টা করছে। আমরাও চীনের সঙ্গে এক ধরনের আলাপ-আলোচনা করছি। তবে এটা একেবারেই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। তিনি বলেন, এর কৌশল কী হবে, কোন প্রক্রিয়ায় আমরা এগোব এখনো সেসব নিয়েই আলোচনা হচ্ছে। এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংক ও ইপিবি বলছে, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে কিছু মুদ্রা নিজেদের উপস্থিতি জোরালো করতে সচেষ্ট। বৈশ্বিক বাণিজ্যে, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও লেনদেনে মুদ্রাগুলো নিজেদের ভূমিকা বিস্তৃত করছে। সূত্র: বিডি প্রতিদিন ।

স্ট্রোকের রোগী সবচেয়ে বেশি ময়মনসিংহ বিভাগে
ময়মনসিংহ বিভাগের দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ কৃষিজীবী। মাত্র ৪১ শতাংশ সাক্ষরতার হারসম্পন্ন বিভাগটির প্রায় এক-তৃতীয়াংশ মানুষই অতি দারিদ্র্যসীমার নিচে অবস্থান করছে। এখানকার কৃষকদের মধ্যে স্বাস্থ্যকর ও পরিবেশবান্ধব কৃষিচর্চার অভ্যাসও তেমন একটা দেখা যায় না। যদিও মানসিক ও কায়িক শ্রমের চাপ অনেক বেশি। বাসিন্দাদের মধ্যে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাপন নিয়ে সচেতনতাও তুলনামূলক কম। এমন আর্থসামাজিক পরিস্থিতি ও জীবনযাত্রা বিভাগটিতে অসংক্রামক বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়াচ্ছে, যা একই সঙ্গে বাড়াচ্ছে স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও। দেশী-বিদেশী গবেষকদের সাম্প্রতিক এক অনুসন্ধানে উঠে এসেছে, বাংলাদেশে জনসংখ্যা অনুপাতে স্ট্রোকের রোগী সবচেয়ে বেশি এখন ময়মনসিংহ বিভাগে। স্ট্রোকের সঙ্গে অপরিকল্পিত নগরায়ণ, অনিয়ন্ত্রিত জীবনাচার, অতিরিক্ত মানসিক ও কায়িক শ্রমের চাপ, খাদ্যাভ্যাসসহ জীবনযাপনের সামঞ্জস্য ব্যাহত হওয়ার সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছেন স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা। জীবনযাপনের এসব সংকট দেশের বাসিন্দাদের মধ্যে উচ্চরক্তচাপ, ডিসলিপিডেমিয়া, ডায়াবেটিস ও হূদরোগের মতো দীর্ঘমেয়াদি রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়াচ্ছে। এসব রোগে আক্রান্তদের মধ্যে স্ট্রোকের ঝুঁকিও সবচেয়ে বেশি। জাতীয় নিউরোসায়েন্স ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের তিনজন এবং যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষক সম্প্রতি বাংলাদেশীদের মধ্যে স্ট্রোকের প্রাদুর্ভাব নিয়ে বিস্তারিত অনুসন্ধান চালান। তাদের এ গবেষণায় উঠে এসেছে, দেশে স্ট্রোকের রোগী প্রতি হাজারে ১১ জন। এর প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি ময়মনসিংহ বিভাগে। বিভাগটিতে হাজারে প্রায় ১৫ জন স্ট্রোকের রোগী রয়েছে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে যথাক্রমে খুলনা ও বরিশাল। এ দুই বিভাগে প্রতি হাজারে স্ট্রোকের রোগী পাওয়া যায় যথাক্রমে ১৪ ও ১৩ জন। ঢাকা ও সিলেটে এ হার প্রতি হাজারে ১২ জন। চট্টগ্রাম ও রংপুরে প্রতি হাজারে স্ট্রোকের রোগী যথাক্রমে ১১ ও নয়জন। সবচেয়ে কম রয়েছে রাজশাহী বিভাগে। এখানে প্রতি হাজারে স্ট্রোকের রোগী আটজন। ‘প্রিভিলেন্স অ্যান্ড রিস্ক ফ্যাক্টরস অব স্ট্রোক ইন বাংলাদেশ: আ নেশনওয়াইড পপুলেশন বেজড সার্ভে’ শীর্ষক ওই গবেষণার ফলাফল সম্প্রতি নেদারল্যান্ডসভিত্তিক বৈজ্ঞানিক জার্নাল এলসেভিয়ারে প্রকাশিত হয়েছে। সূত্র: বণিক বার্তা।

বিপিসি, জ্বালানি মন্ত্রণালয়কে জনগণের কাছে তেলের দাম বাড়ানোর ব্যাখ্যা দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেছেন, জ্বালানি মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি)-কে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণ জনগণের কাছে ব্যাখ্যা করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিব সাংবাদিকদের জানান, 'আজকের সভায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন। সেখানে বিপিসি ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় তাদের ব্যাখ্যা দিয়েছে। কিন্তু, বিষয়টি কারিগরি হওয়ায় তাদেরকে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পদক্ষেপ আবারো জনতার কাছে ব্যাখ্যা করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী'। এর পাশাপাশি বিপিসি ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় তেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে যে ব্রিফিং করেছে, সেটি যেন কিছুদিন পরপর করা হয়- এমন নির্দেশও দিয়েছেন সরকার প্রধান। একজন সাংবাদিক এ সময় জানতে চান, সরকার দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসবে কিনা? জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, 'এটি ওনারা (জ্বালানি মন্ত্রণালয়) সব পরিষ্কার করবে।' সূত্র: বিডি প্রতিদিন।

বিএনপি: জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিরোধী দলের সমাবেশ থেকে সরকারের পদত্যাগের ডাক

বাংলাদেশে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঢাকায় আয়োজিত এক সমাবেশ থেকে বিরোধী দল বিএনপি নেতারা সরকারের পদত্যাগ এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবী করেছেন।তারা বলেছেন সরকার তাদের দাবিতে কান না দিলে বিএনপি রাস্তায় জোরদার আন্দোলন শুরু করবে।বিএনপি মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর তার ভাষণে মানুষকে "রাজপথ দখলের" আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানান। "এখন লড়াই রাজপথ দখলের ... রাজপথেই দাবী আদায়ের আন্দোলনের ফয়সালা হবে।"তবে এই মুহূর্তে হরতাল বা অবরোধের মত কোনো কর্মসূচি নেওয়ার সম্ভাবনা নাকচ করেছেন বিএনপি মহাসচিব।
সমাবেশে তার ভাষণের আগে তিনি বিবিসি বাংলার কাদির কল্লোলকে বলেন, "এই মুহূর্তে হরতাল অবরোধের মত কর্মসূচির কথা বিএনপি ভাবছে না। মানুষকে সম্পৃক্ত করা যায় এমন কর্মসূচীর কথা আমারা ভাবছি।" সূত্র: বিবিসি বাংলা।

হাওয়া’য় বন্যপ্রাণী আইন ‘লঙ্ঘন হয়েছে’
সিনেমাটি দেখার পর এই দাবি করেছেন বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের কর্মকর্তারা।

অভিযোগ পেয়ে ‘হাওয়া’ দেখল বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট। দেখে তারা বলল, এই সিনেমায় বন্যপ্রাণী আইন লঙ্ঘন হয়েছে। যদিও সিনেমাটির নির্মাতা দাবি করে আসছিলেন, তারা আইন লঙ্ঘনের মতো কিছু করেননি। গত ২৯ জুলাই দেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে মুক্তি পায় হাওয়া। দীর্ঘদিন পর দেশে চলচ্চিত্র অঙ্গনে সাড়া ফেলার পাশাপাশি এই সিনেমায় বন্যপ্রাণী আইন লঙ্ঘনের অভিযোগও আসে।শালিক পাখিকে খাচায় বন্দি রাখা, মেরে খাওয়া কিংবা শাপলা পাতা মাছ ধরার দৃশ্যগুলো আইন লঙ্ঘনের নজির বলে প্রাণী অধিকারকর্মীরা অভিযোগ তুললে সিনেমাটি দেখার সিদ্ধান্ত নেয় বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট।
ইউনিটের চার কর্মকর্তা বৃহস্পতিবার বসুন্ধরার স্টার সিনেপ্লেক্সে সিনেমাটি দেখেন। দেখা শেষে ইউনিটের পরিদর্শক অসীম মল্লিক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সিনেমাটি দেখলাম। ঘটনা সত্য। সূত্র: বিডি প্রতিদিন ।

হু হু করে বাড়ছে চালের দাম
প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে মোটা, সরু সব ধরনের চালের দাম। মানভেদে প্রতি কেজি চালের দাম পাইকারিতে ৩ থেকে ৪ টাকা এবং খুচরা বাজারে ৫ থেকে ৬ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।
আরও বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। অন্যদিকে বেঁচে থাকার জন্য জরুরি এ খাদ্যপণ্যের দাম বাড়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন নিম্ন ও মধ্যম আয়ের ক্রেতারা। কয়েক হাত ঘুরে এই চাল খুচরা ক্রেতারা কিনতে গিয়ে উঠছে নাভিশ্বাস।দাম বাড়ার কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা বলছেন জ্বালানি তেলের দাম ও পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধির পাশাপাশি বন্যার কারণে এবছর হাওড়ে ধান উৎপাদন কম হয়েছে। অন্যান্য এলাকায়ও প্রকৃতিক দুর্যোগে ফলন বিঘাপ্রতি ২ থেকে ৪ মণ কমেছে। ফলে বোরো মৌসুমে চালের উৎপাদন কম হওয়াকে দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা।এদিকে বাজারে চালের দাম বাড়তে থাকায় সরকার আমদানির অনুমতি দিয়েছে। তবে ডলার–সংকটের কারণে আমদানিতে গতি নেই। বাড়তি দামে এখন বড় চালানে চাল আমদানি করতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। শুক্রবার (১২ আগস্ট) রাজধানীর কয়েকটি খুচরা ও পাইকারি বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খুচরা বাজারে জাত ও মানভেদে প্রতি কেজি মিনিকেট চাল ৭০ থেকে ৭৫ টাকা৷ নাজিরশাইল চাল ৭৫ থেকে ৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। মাঝারি মানের চাল পাইজাম ও হাস্কি ৫৫ থেকে ৫৮ টাকা। আটাশ চাল ৬০ থেকে ৬৫ টাকা। মোটা চাল স্বর্ণা ৫২ থেকে ৫৫ টাকা। এক সপ্তাহ আগেও এসব চাল ৫ থেকে ৬ টাকা কম দামে বিক্রি হয়েছে। সূত্র; বাংলানিউজ