ট্রেন দুর্ঘটনা: গেটকিপার ও মাইক্রোচালককে দায়ী করে তদন্ত প্রতিবেদন

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২২, ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ট্রেন ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে ১৩ পর্যটকের মৃত্যুর ঘটনায় প্রতিবেদন জমা দিয়েছে রেলওয়ের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি। তিন দিনের মধ্যে জমা দেওয়ার কথা থাকলেও ১৭ দিন পর এই প্রতিবেদন জমা দিলো তদন্ত কমিটি।

ওই প্রতিবেদনে দুর্ঘটনার জন্য লেভেল ক্রসিংয়ে দায়িত্বরত গেটকিপার সাদ্দাম হোসেন ও দুর্ঘটনায় নিহত মাইক্রোবাসচালক গোলাম মোস্তফা নিরুকে দায়ী করা হয়েছে।

বুধবার (১৭ আগস্ট) সকালে রেলওয়ের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক আবুল কালাম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, “গেটকিপার ও মাইক্রোবাস চালককে দায়ী করে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) প্রতিবেদন জমা দিয়েছে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি। ঘটনার পর থেকে গেটকিপার সাদ্দাম হোসেনকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়। যেহেতু প্রতিবেদনে তার গাফিলতির প্রমাণ মিলেছে, এজন্য তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেবো।”

ওই দুর্ঘটনায় মাইক্রোবাস মোস্তফা ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। লেভেল ক্রসিংয়ের গেটকিপার সাদ্দাম হোসেন কারাগারে আছেন।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই দুপুর দেড়টার দিকে মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ঝরনা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন মাইক্রোবাসের পর্যটকেরা। পরে মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া এলাকায় লাইনে উঠে পড়া মাইক্রোবাসটিকে দ্রুতগামী ‘মহানগর প্রভাতী’ ট্রেন টেনে হিঁচড়ে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে নিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ১১ পর্যটক নিহত হয় এবং পরে মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুইজন মারা গেছেন।

দুর্ঘটনায় নিহত ১৩ জনের সবাই মাইক্রোবাসের আরোহী ছিলেন। এদের সবার বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারি উপজেলায়। নিহতের মধ্যে ১১ জনই ছিল বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী।

সারাদিন/১৭ আগস্ট/এমবি