‘বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন উপমহাদেশে সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিবে’

নিজস্ব প্রতিনিধিনিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ৩:৫৫ অপরাহ্ণ, ১৪/১২/২০১৯

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আশংকা প্রকাশ করে বলেন, বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন উপমহাদেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি উসকে দেওয়ার পাশাপাশি সংঘাত সৃষ্টি করবে।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে রায়েরবাজার শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানাতে এসে তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, নাগরিকত্ব তালিকার (এনআরসি) পর সিএবি পাসের জেরেও ভারতের বাংলাদেশ সংলগ্ন কয়েকটি রাজ্যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। বিলটি বাতিলের দাবি শুরু থেকেই উঠেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আইন হয়ে গেলো। এই ধরনের আইন উপমহাদেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি উসকে দেবার পাশাপাশি সংঘাত সৃষ্টি করবে।

বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, আমরা উপমহাদেশে সবাই মিলেমিশে বসবাস করি। সবার মধ্যে একটা সম্প্রীতি রয়েছে। কিন্তু ভারতের সরকার শুধু ভারতে সমস্যা সৃষ্টি করবে না, উপমহাদেশে সংঘাত সৃষ্টি করবে।

তিনি বলেন, ভারতে আজকে যে অবস্থা তৈরি হয়েছি, এটা শুধু বাংলাদেশে না সমগ্র উপমহাদেশের অঞ্চলে একটা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করবে। সংঘাতের সৃষ্টি করবে। রাজনীতির যে মূল বিষয়গুলো ছিল, উদারপন্থী গণতান্ত্রিক রাজনীতি, অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি, সে বিষয়গুলোকে ধ্বংস করে দিয়ে একটা সাম্প্রদায়িক রাজনীতিকে প্রতিষ্ঠা করার প্রয়াস চালানো হচ্ছে।

স্বাধীনতা যুদ্ধের যে চেতনা, স্বাধীন স্বার্বভৌম গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করার যে স্বপ্ন, সেটা বর্তমানের আওয়ামী অগণতান্ত্রিক সরকার ভেঙে খান খান করে দিয়েছে বলেও দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব।

Nagad

তিনি বলেন, সরকার বাঙালি জাতিব সব অর্জন আজ নিশ্চিহ্ন করে ফেলেছে। আমরা আজকে গণতন্ত্রবিহীন একটি অবস্থার মধ্যে বিরাজ করছি। আজকে আমাদের নেত্রী কারাগারে, হাজার হাজার নেতাকর্মী কারাগারে। এরা মিথ্যা মামলা দিয়ে দলকে স্তব্ধ করে দেওয়ার অপচেষ্টা করছে।

সারাদিন/১৪ডিসেম্বর/টিআর