‘সরকার একটি পেশাদার ও সুপ্রশিক্ষিত সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চায়’

নিজস্ব প্রতিনিধিনিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ৪:২৯ অপরাহ্ণ, ১৫/১২/২০১৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য একটি পেশাদার ও সুপ্রশিক্ষিত সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চায়। বিশ্ব ক্রমাগত পরিবর্তন হচ্ছে। সেজন্য পরিবর্তনের সঙ্গে আমাদের তাল মিলিয়ে চলতে হবে। আমাদের অত্যাধুনিক সামরিক সরঞ্জাম থাকতে হবে এবং এসবের জন্য সব ধরনের প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

রোববার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে ঢাকার মিরপুর সেনানিবাসস্থ সামরিক বাহিনী কমান্ড ও স্টাফ কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন কারীদের হাতে সনদ তুলে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশের জন্য কখন, কী প্রয়োজন সে সম্পর্কে আমরা ভালোভাবে জানি এবং আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার গৃহীত প্রতিরক্ষা নীতিমালার আলোকে সরকার ‘সশস্ত্র বাহিনী গোল ২০৩০’ প্রণয়ন করে সশস্ত্র বাহিনীকে আরও শক্তিশালী ও সময়োপযোগী করার লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা আধুনিক সামরিক সরঞ্জাম সংগ্রহ ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

সরকার সর্বশেষ সামরিক সরঞ্জাম সংগ্রহ করছে ও সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের জন্য যথাযথ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে। যাতে তারা জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ব্যবহৃত আধুনিক যুদ্ধ সরঞ্জামসমূহের সঙ্গে পরিচিত হতে পারে ও যেকোনো পরিস্থিতিতে ভূমিকা পালন করে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারে-যোগ করেন তিনি।

স্বাধীনতার মর্যাদা সমুন্নত রেখে যেকোন ত্যাগ স্বীকারে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান সরকার প্রধান।

Nagad

একবিংশ শতাব্দীর বহুমুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দেশের সশস্ত্র বাহিনীকে দক্ষ করে গড়ে তোলা হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সারাদিন/১৫ ডিসেম্বর/টি